ময়মনসিংহে পূজামণ্ডপে শাওন হত্যার বিবরণ দেন পুলিশ সুপার

প্রকাশিত: ৫:৪৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১০, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক:
বৃহস্পতিবার (১০ অক্টোবর) বেলা সাড়ে ১১ টায় জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে পূজামণ্ডপে শাওন হত্যার বিবরণ দেন ময়মনসিংহ পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি উল্লেখ করেন, ময়মনসিংহ নগরের গােলপুকুরপাড় পূজামন্ডপে গত ৮ অক্টোবর প্রতিমা বিসর্জনের প্রস্তুতির সময় সেখানে নাচানাচি করছিল মুন্না, আবির ও মাহিনের পৃথক তিনটি গ্রুপ। নাচানাচির এক পর্যায়ে মাহিন গ্রুপের সাথে আবির গ্রুপের ধাক্কাধাক্কি শুরু হয়। এরই সূত্র ধরে তিনটি গ্রুপের মধ্যে চলে ত্রিমুখী মারপিট।

এক পর্যায়ে মাহিন তার ডান প্যান্টের
পকেট থেকে সুইজ গিয়ার (চাকু) বের করে এলােপাথারিভাবে ধস্তাধস্তি করলে প্রথমে আবির আহত হয়, পরে মাহিন শাওনের বুকে মারাত্মক আঘাত করে। তাকে মারাত্মক জখমপ্রাপ্ত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে গেলে তার মৃত্যু হয়।

পুলিশ সুপার বলেন, হত্যাকাণ্ডের খবর জানা মাত্রই কোতােয়ালী থানা ও ডিবি পুলিশসহ
আমি ঘটনাস্থলে উপস্থিত হই এবং থানা ও ডিবি পুলিশকে যৌথভাবে গ্রেফতারের অভিযান চালানোর নির্দেশ দেই। পরে মামলার নয় আসামির মধ্যে সাতজনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে, তারা হল- মাহফুজুল ইসলাম মাহিন (১৮), আকাশ চন্দ্র দে (১৫), সারোয়ার উদ্দিন হৃদয় (১৮), ফারদিন (১৯), সাজ্জাদ (১৯), মুন্না (১৯), রাকিব (১৯)।
নিহত শাওন ভট্টাচার্য ময়মনসিংহ কমার্স কলেজের ২য় বর্ষের ছাত্র ছিল।