জার্নাল ডেস্ক
1 October 2019
  • No Comments

    ময়মনসিংহ করপোরেশনের মেয়র ও ভাই আমিনুল হক শামীম এর সাংবাদিক সম্মেলন

    নিজস্ব প্রতিবেদক:
    ময়মনসিংহে আওয়ামীলীগ নেতাদের হেয় প্রতিপন্ন করতে একটি কুচক্রী মহল ঘৃণ্য ষড়যন্ত্রে অপচেষ্টায় লিপ্ত হয়েছে বলে অভিযোগ এনে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন ‘ময়মনসিংহ করপোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু ও ভাই আমিনুল হক শামীম ।এ সময় জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। এ সময় তারা দাবি করেন, ওই কুচক্রী মহলটি বিএনপি জামায়াত-শিবিরের মদদে রাজনৈতিক দেউলিয়াপনার পরিচয় দিয়ে মিথ্যা বানোয়াট ও জঘণ্য কূট-কৌশলে লিপ্ত রয়েছে।
    মঙ্গলবার দুপুরে ময়মনসিংহ প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সম্প্রতি একটি অনলাইন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদে জেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে নেতৃবৃন্দ এ অভিযোগ করেন।
    এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাজী আজাদ জাহান শামীম লিখিত বক্তব্যে বলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল একজন স্বনামধন্য আইনজীবী। তিনি যুদ্ধাপরাধীর বিরুদ্ধে এবং বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে কটুক্তিকারীদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা পরিচালনা করেছেন। এ সময় জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদকের প্রসঙ্গে বলেন, অলকা নদী বাংলা কমপ্লেক্সে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুলের কোনো ফ্ল্যাট নেই। তিনি সেখানে একটি ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়ে বসবাস করছেন। তাঁর নিজস্ব কোনো প্রাইভেট কার নেই, চলেন রিকসায় অথবা দলীয় কর্মীদের মোটরবাইকে।
    সংবাদ সম্মেলনে একই শহরে দুইটি দলীয় কার্যালয় প্রসঙ্গে নেতৃবৃন্দ বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে দলীয় কর্মকান্ড বেড়ে যাওয়ার কারনে বর্তমান দলীয় কার্যালয়ে স্থান সংকুলান না হওয়ায় জেলা আওয়ামী লীগের নতুন কার্যালয় প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। সেখানে প্রতিদিন শত শত নেতা-কর্মীর সমাগম ঘটে। এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আমিনুল হক শামীম এবং তাঁর ছোট ভাই মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু প্রসঙ্গে সাংবাদিক সম্মেলনে নেতৃবৃন্দ বলেন, পারিবারিক ভাবেই তারা প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী। এফবিসিসিআইয়ের সাবেক পরিচালক আমিনুল হক শামীম দেশের স্বনামধন্য ভিআইপি এবং সিআইপি। তিনি বিএনপি আমলে কারা নির্যাতিত নেতা। বিগত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন। দেশে তাঁর ফাইভ স্টার হোটেলসহ বিভিন্ন বৈধ ব্যবসা রয়েছে। অথচ ময়মনসিংহ জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ নেতাসহ সিটি করপোরেশনের মেয়রের বিরুদ্ধে মিথ্যা, বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত অপপ্রচার করছে একটি কুচক্রী মহল। আমরা এসব ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
    সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, সহ-সভাপতি আমিনুল হক শামীম, মোমতাজ উদ্দিন মন্তা, ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এহতেশামুল আলম, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাজী আজাদ জাহান শামীম, সাংগঠনিক সম্পাদক কৃষিবিদ ড.সামিউল আলম লিটন।
    সংবাদ সম্মেলনে নেতৃবৃন্দ আরো জানান, দলীয় নেতাদের জড়িয়ে মিথ্যা, বানোায়াট ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত অপপ্রচারের বিরুদ্ধে কোতোয়ালী মডেল থানায় আইসিটি আইনে মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলায় ইতিমধ্যে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
    পরে বিকেল ৩টায় অপপ্রচারের প্রতিবাদে ময়মনসিংহ নগরীতে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল করেন জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগ।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *