জার্নাল ডেস্ক
11 August 2021
  • No Comments

    তারাকান্দায় সংখ্যালঘু পরিবারে নির্যাতন, অভিযোগেও নেই প্রতিকার

    নিজস্ব প্রতিবেদক:

    ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলায় সংখ্যালঘু পরিবারে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। এনিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যানের কাছে ভুক্তভোগী মধুরাম রবিদাস লিখিত অভিযোগে দিলেও নেই কোন প্রতিকার। এ ঘটনায় নির্যাতিত পরিবারে মিশ্রপ্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

    লিখিত অভিযোগে মধুরাম রবিদাস জানান, উপজেলার গোপালপুর বাজারের পাশে বিগত একশ বছর ধরে বসবাস করে আসছি। ১৯৬৭ সালে আমার পিতা স্থানীয় আব্দুল হামিদের কাছ থেকে ৭ শতাংশ জমি ক্রয় করে বসতবাড়ি নির্মাণ করে। এই জমি থেকে আমাদের উচ্ছেদ করতে অপচেষ্টা করছে স্থানীয় প্রভাবশালী চার ভাই মিন্টু, নান্টু, জুয়েল ও রুবেল। কিছুদিন পূর্বে তারা আমাদের কাছ থেকে কৈাশলে ২ শতাংশ জমি লিখে নেয়। সম্প্রতি আমরা ৮ শতাংশ জমি ন্যায্যমূল্যে বিক্রি করে দিলে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে।

    ভুক্তভোগী শ্যামল রবিদাস বলেন, সম্পত্তি আমাদের জন্য কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে। সম্পত্তির কজারণেই স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহলের নির্যাতনের শিকার আমরা।

    স্থানীয় বীরমুক্তিযোদ্ধা আবদুল জব্বার বলেন, সংখ্যালঘু পরিবারের উপর প্রভাবশালী মহলের হয়রানি বা নির্যাতন কাম্য নয়। প্রশাসন অভিযোগ খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা গ্রহন করবে বলে আশা করছি।

    তারাকান্দা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাড. ফজলুল হক বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তবে এ ধরনের নির্যাতন কাম্য নয়। বিষয়টি নিয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তপক্ষের সাথে কথা বলব।

    এ বিষয়ে তারাকান্দা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিজাবে রহমত বলেন, বিষয়টি অত্যান্ত উদ্বেগজনক , খুব দ্রত এ ব্যপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

    তবে তারাকান্দা থানার ওসি আবুল খায়ের বলেন, দু’টি পক্ষের মধ্যে জমি নিয়ে বিরোধ চলছে। মূলত রবিদাস পরিবার জমি বিক্রি করে দিয়েছে। কিন্তু ক্রেতা পক্ষের সাথে স্থানীয় অন্য একটি পক্ষের সমস্যা থাকায় এ বিরোধের সৃষ্টি। দু-একদিনের মধ্যে দু’পক্ষকে থানায় ডেকে স্থায়ী সামাধানের চেষ্টা করা হবে।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *