জার্নাল ডেস্ক
4 July 2021
  • No Comments

    গফরগাঁওয়ে লকডাউনে এনজিওকর্মীরা কিস্তি আদায়ে ব্যস্ত

    মাজহারুল ইসলাম রাজু,গফরগাঁও:

    ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলা হাতি খলা ও বাসু টিয়া গ্রামে এফএইচপি এনজিওকমীরা লকডাউনের মধ্যে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে কিস্তি আদায়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে। ফলে বিপাকে পড়েছেন নিম্ন আয়ের ঋণগ্রহীতারা। ঋণের কিস্তি দিতে হিমশিম খাচ্ছেন তারা। ছোটখাটো বিভিন্ন ব্যবসায়ী ঋণ নিয়ে তাদের ব্যবসার কার্যক্রম চালান। এ ছাড়াও অনেকে এনজিও থেকে সাপ্তাহিক কিস্তিতে ঋণ নিয়ে রিক্সা অটো ভ্যান ইজিবাইক সহ বিভিন্ন যানবাহন কিনে চালিয়ে তা থেকে আয় করে জীবিকা নির্বাহ করেন ও ঋণের কিস্তি দেন।

    এবারে করো না ধীরে ধীরে মৃতু ও আক্রান্তের হার বাড়তে থাকায় সরকার দেশজুড়ে কঠোর লকডাউন ঘোষণা করে। ফলে সরকারি-বেসরকারি অফিস-আদালত ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ফলে আয়-রোজগার বন্ধ হয়ে যায় অনেক মানুষের। এমন পরিস্থিতিতে এনজিওর ঋণের কিস্তি দিতে হিমশিম খাচ্ছেন নিম্ন আয়ের ঋণগ্রহীতারা ,এমন সময়ে এ সকল ভুক্তভোগী খেটেখাওয়া ঋণগ্রহীতা যখন তাদের সংসার চালাতে হিমশিম খাচ্ছেন। এর মধ্যে এফএইচপি নামক এনজিওকর্মীরা বাড়ি বাড়ি কিস্তি আদায়ের জন্য ধরনা দিচ্ছেন, চাপ সৃষ্টি করে কিস্তি আদায় করা হচ্ছে। এ বিষয়ে এফএইচপি এনজিওর মাঠ পর্যায়ের কর্মী সাখাওয়াত হোসেন নাজমুল আলম বলেন আমরা কি করবো আমাদেরকে লকডাউন এর মাঝেও কিস্তি আদায় করার জন্য ম্যানেজার পাঠিয়েছে আমরা অন্যের চাকরি করি না আসলে আমাদের চাকরি থাকবে না তাই আমরা বাধ্য হয়ে সরকারি আইন অমান্য করে কিস্তি আদায় করতে এসেছি , ভুক্তভোগী নাসির মিয়া বাবুল মিয়া আলাল মিয়া নাসি আক্তার বিলকিস বেগম তারা বলেন আমরা গরীব মানুষ এই লকডাউন এর কারণে আমাদের আয় রোজগার নেই আমরা একেবারেই অসহায় হয়ে পড়েছি আমরা তিনবেলা খাবার খেতে হিমশিম খাচ্ছি এর মাঝেও এই এনজিওর লোকেদের কিস্তি আদায়ের জন্য চাপ প্রয়োগ করছে কিস্তি যতক্ষণ না দেওয়া হয় ততক্ষণ বাড়িতে বসে থাকে আমরা কি করবো বুঝতে পারছিনা যদি এই লকডাউন এর মাঝে এনজিওর কিস্তি বন্ধ না হয় আমাদের গলায় দড়ি দিয়ে মরতে হবে তা ছাড়া আর কোন উপায় নেই । এ বিষয়ে গফরগাঁও উপজেলা নির্বাহি অফিসার তাজুল ইসলাম বলেন সরকারি আইন অমান্য করার কারো অধিকার নেই আমি গতকালকেও এই এফএইচপি এনজিওর নামে কিস্তি আদায়ের অভিযোগ পেয়েছি আজকেও তাদের বিরুদ্ধে কিস্তি আদায়ের অভিযোগ পেয়েছি তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *