জার্নাল ডেস্ক
27 June 2021
  • No Comments

    মাদারগঞ্জে ধর্ষণের মামলা করতে উৎসাহ দিলেন ওসি

    নিজস্ব প্রতিবেদক
    :
    জামালপুরের মাদারগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মাহবুবুল হক এর উৎসাহে ঘটনার ৬ দিন পরে ধর্ষণের শিকার মেয়ের বিচার চেয়ে ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন এক বাবা । এর আগে ধর্ষণের বিষয়টি স্থানীয় প্রভাবশালী মহল রফা-দফার চেষ্টা করেন। পরে ওসি মোহাম্মদ মাহবুবুল হক বিষয়টি জানলে ধর্ষিতার পরিবারকে নির্ভয়ে মামলা করার সাহস জোগান।

    স্থানীয়রা জানান, গত ২২ জুন মঙ্গলবার রাতে উপজেলার কড়ইচুড়া ইউনিয়নের একটি গ্রামে এক কিশোরীকে তিন বন্ধু মিলে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। কিশোরীর পরিবারটি দরিদ্র হওয়ায়, মামলা না করার জন্য নানা ভাবে হুমকি দুমকি দিয়ে আসছিলো প্রভাবশালীরা।
    পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে কিশোরী প্রকৃতির ডাকে ঘর হতে বাহির হলে সুমন ও তার দুই বন্ধু এনামুল হক (২১) জাকিরুল (২২) মেয়েটিকে মুখ চেপে ধরে বাড়ীর পাশে পাঠ ক্ষেতে নিয়ে জোর পুর্বক ধর্ষণ করে। মামলা হওয়ার পর কিশোরীর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য জামালপুর সদর হাসপাতালের ওয়ান–স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হয়েছে।

    কিশোরী বাবা বলেন, ধর্ষণের পর মেয়েটি কেঁদে তার মাকে পুরো ঘটনা খুলে বলে। বিষয়টি নিয়ে এলাকার কিছু লোক আপস-মিমাংসার চেষ্টা করে ও ধামাচাপা দিতে তাকে ভয় প্রদর্শন করতে থাকে। পরে মাদারগঞ্জ থানার ওসির সহযোগিতাই মামলা করি। তিনি এই অন্যায়ের সর্বোচ্চ বিচার চান।

    মাদারগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মাহবুবুল হক বলেন, কিশোরীকে ধর্ষণের ঘটনায় শনিবার রাতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা হওয়ার পর থেকেই অভিযুক্ত আসামি সুমন (২০) এনামুল হক (২১) জাকিরুল (২২)কে গ্রেপ্তারে পুলিশি অভিযান চলছে । তারা একই গ্রামের বাসিন্দা।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *