জার্নাল ডেস্ক
26 June 2021
  • No Comments

    জামালপুর সরকারী বালিকা উচ বিদ্যালয়ে ভর্তি বার্ণিজ্য

    মিঠু আহমেদ,জামালপুর ॥

    জামালপুর সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক কর্তৃক অবৈধ ভাবে ছাত্রী ভর্তির অভিযোগ করেছে অভিভাবকরা। অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, ২০২১ শিক্ষাবর্ষে সারাদেশের ন্যায় জামালপুর সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে টেলিটকের মাধ্যমে লটারীতে ছাত্রী ভর্তি করা হয়। সেখানে সরকারী ভাবে ভর্তির ক্ষেত্রে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিদের সুপারিশ গ্রহনযোগ্য নয়। শুধুমাত্র লটারীর মাধ্যমে নির্বাচিত ছাত্রীদের ভর্তির একমাত্র মাধ্যম হলেও জামালপুর সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক শেহনাজ হক চৌধুরী ও সহকারী প্রধান শিক্ষক আব্দুল মান্নান পারস্পারিক যোগসাজসে অনৈতিক ভাবে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ১ম শ্রেণীর দিবা শাখার জান্নাত ইসলাম নামে এক ছাত্রীকে ভর্তি করেন। যার টেলিটক কর্তৃক প্রকাশিত মেধা তালিকায় ও অপেক্ষামান তালিকায় কোন নাম নেই। তার পরেও অবৈধ ভাবে ভর্তিকৃত ছাত্রী জান্নাত ইসলাম বিদ্যালয়ের যাবতীয় পাওনাদি অনলাইনের মাধ্যমে নিয়মিত পরিশোধ করে যাচ্ছেন। যা তদন্ত করলে আসল রহস্য বেড়িয়ে আসবে বলে মন্তব্য করেছেন সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের অভিভাবকরা। নাম প্রকাশের অনিচ্ছুক একাধিক অভিভাবকরা দৈনিক খোলা কাগজকে বলেন, বর্তমান ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক শাহনাজ হক চধুরী জামালপুর জেলা প্রশাসকর নাম ভাঙ্গিয় সুবিধার বিনিময়ে নিজর খেয়াল খুশি মত অপক্ষামান তালিকা থেকে ছাত্রী ভর্তি করছন।
    এ বিষয়ে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক শাহনাজ হক চধুরীর সাথে বিদ্যালয় গিয়ে যোগাযোগ করলে তিনি এ বিষয়ে কোন প্রকার মন্তব্য করতে রাজি হয়নি। জামালপুর জেলা প্রশাসক মোর্শেদা জামানের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করলে তিনি বলন, ঘটনাটি আমার জানা নেই। তবে ক্ষতিয়ে দেখে প্রযাজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হব।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *