ঈশ্বরগঞ্জে জমি বিরোধে বৃদ্ধ ধর্ষণ মামলার আসামী

প্রকাশিত: ৩:৩৪ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২০, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক:
ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে ষাট বছর বয়স্ক এক বৃদ্ধকে ধর্ষণ মামলায় আসামী করা হয়েছে বলে দাবি পরিবারের । এ ঘটনায় সরেজমিনে তদন্ত চেয়ে জেলা পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত আবেদন করেছেন বৃদ্ধের ছেলে বিমান বাহিনীর সার্জেন্ট জাহাঙ্গীর আলম। এমন ঘটনায় স্থানীয় বাসিন্দাদের মাঝে মিশ্রপ্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।
পবিারের লোকজন সাংবাদিকদের গত ১১ আগষ্ট লিখিত অভিযোগ পত্রে উলেøিখত বিষয়গুলো আলোকপাত করতে গিয়ে বলেন , প্রায় এক যুগ বছর আগে আমার পিতা আছির উদ্দিন প্রতিবেশী কলিম উদ্দিনের কাছে ২২ শতক জমি বন্ধক দেয়। কিন্তু দূর্ভাগ্য বশত: বন্ধক গ্রহীতা মারা যাবার পর তাঁর স্ত্রীর কাছ থেকে জমিটি জবর দখল করে নেয় স্থানীয় প্রভাবশালী রেজাউল করিম খোকন। কিছুদিন যাবত খোকন ওই জমিটি লিখে নিতে আমার পিতাকে হুমকি দিচ্ছিল। মূলত ওই জমি ঘটনায় জের ধরে ষড়যন্ত্রমূলক ভাবে আমার পিতাকে র্ধষণ মামলায় ফাঁসানো হয়েছে।
সূত্র জানাযায়, মামলার বাদি জেলেহা বেগম প্রভাবশালী খোকনের নিজ চাচাত বোনের মেয়ে। খোকন ওই মামলার স্বাক্ষী। ভিকটিমের দারিদ্রতার সুযোগে ষড়যন্ত্রকারী খোকন আমার পিতাকে ধর্ষণ মামলায় ফাসিঁয়ে নিজ স্বার্থ হাসিলের ফন্দি করেছেন। সরেজমিনে তদন্ত করলে সত্যতা বেরিয়ে আসবে।
তবে রেজাউল করিম খোকন বলেন, আমি জমি কিনেছি কলিম উদ্দিনের কাছ থেকে। বর্তমানে আমি দখলে আছি। তবে ওই জমিটি লিখে দিবেন আছির উদ্দিন। কিন্তু আছিরের সাথে আমার জমি বিরোধ থাকলেও ধর্ষণের ঘটনা সত্য।
এবিষয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ঈশ্বরগঞ্জ থানার এসআই মারফত আলী বলেন, জমি বিরোধের বিষয়টি জানা নেই। তবে তদন্তে প¦ারিপার্শ্বিক সব বিষয়ে খোঁজখবর নিয়েই চার্জসীট প্রদান করা হবে।