সরিষাবাড়ীতে নিখোঁজ ৩ জুয়াড়িকে খোঁজছে ডুবুরির দল

প্রকাশিত: ৭:০৫ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৮, ২০২০

মোঃ সোলায়মান হোসেন হরেক, সরিষাবাড়ী :

সরিষাবাড়ীতে জুয়ার আসরের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে হামলা সংঘর্ষ ঘটনা ঘটেছে। এতে জুয়ারীদের মধ্যে অন্তত ১০ জন আহত ও ৩ জুয়াড়ি নিখোঁজ রয়েছে। শনিবার দুপুরে জামালপুরের ফায়ার সার্ভিসের একদল ডুবুরি যমুনা নদীতে নিখোঁজ ৩ জুয়াড়িকে উদ্ধারের কাজ করছে।
এ নিখোঁজ ৩ জন হলেন,ছানোয়ার হোসেন ছানু, হাফিজুর রহমান ও ফজলুল হক ফজল। বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার পিংনা ইউনিয়নের চর বাশুরিয়া এলাকার যমুনা নদীর দুর্ঘম তীরে এ ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে গুরুতর আহত আব্দুল মান্নান নামে জুয়াড়িকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনার ২ জুয়াড়িকে আটক করেছে পুলিশ। এরা হল- সোহেল ও সজিব
মিয়া।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পিংনা ইউনিয়নের চর বাশুরিয়া গ্রাম দুর্গম চর এলাকার যমুনা নদীর তীরে জুয়াড়ি আব্দুল মান্নানের নেতৃত্বে দীর্ঘদিন ধরে ‘ওয়ান টেন’ নামে জুয়ার আসর চালিয়ে আসছিল। এ নিয়ে স্থানীয় অপর একটি গ্রুপে সঙ্গে জুয়ার আসরের আধিপত্যকে কেন্দ্র করে বিরোধ বাধে। একপর্যায় বৃহস্পতিবার রাতে দুই গ্রুপের মধ্যে হামলা, ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষ চলাকালে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর আহত হন জুয়াড়ির আসরের মালিক আব্দুল মান্নান। এ সময় ৩ জুয়াড়ি ছানোয়ার হোসেন ছানু, হাফিজুর রহমান ও ফজলুল হক ফজল এ ৩ জনকে খোঁজে পাওয়া যায়নি। নিখোঁজের ২ দিন পর শনিবার দুপুরে জামালপুর ফায়ার সার্ভিসের একদল ডুবুরি নদীতে নিখোঁজ ৩ জুয়াড়িকে খোঁজার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। শনিবার বিকাল ৫টায় পর্যন্ত কাউকে উদ্ধার করতে পারেনি ডুবুরির দল।
জামালপুর পুলিশ সুপার শিবলী সাদিক জানান, নিখোঁজ ৩ জুয়াড়িকে উদ্ধারের চেষ্টা চালছে। নদীতে ডুবুরির দল কাজ করছে। এ জুয়ার আসরের সঙ্গে যুক্ত সন্দেহে ২ জনকে আটক করা হয়েছে।