ময়মনসিংহে স্কুল ছাত্রীকে বখাটের ছুরিকাঘাত, প্রতিবাদে বিক্ষোভ

প্রকাশিত: ৪:৪০ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৫, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক:
ময়মনসিংহের গৌরীপুরে যৌন হয়রানীর প্রতিবাদ করায় ডক্টর এম.আর করিম উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী পাপিয়া সুলতানা (১৪)কে ছুরিকাঘাত করেছে এক বখাটে। বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৬টায় কোচিংয়ে যাবার পথে উপজেলার অচিন্তপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত ওই স্কুল ছাত্রীকে প্রথমে গৌরীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলেও দুপুরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।
জানাযায়, আহত স্কুল ছাত্রী অচিন্তপুর ইউনিয়নের চড়াকোনা গ্রামের কৃষক আবুল হাসিমের মেয়ে। ঘটনার পর বখাটে জহিরুল পলাতক রয়েছে।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ড.এম.আর করিম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইফুল ইসলাম। তিনি জানান, অচিন্তপুর ইউনিয়নের চড়াকোনা গ্রামের বখাটে যুবক জহিরুল ইসলাম একজন মাদকসেবী। সে নিয়মিত বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের উক্ত্যক্ত করত। এসব ঘটনায় পরিবারের কাছে বিচার চেয়েও প্রতিকার পায়নি ভুক্তভোগীরা। শালিস-দরবারেও স্থানীয় গণ্যমান্যরা ব্যর্থ হয়। পরে এ ঘটনায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ জহিরুলকে গ্রেফতারে অভিযান চালালে প্রায় এক বছর আত্মগোপনে ছিল ওই বখাটে। কিন্তু সম্প্রতি সে বাড়ী ফিরে এসে ওই ছাত্রীকে ছুরিকাঘাতে জখম করে।
স্থানীয় সূত্র জানায়, এ ঘটনায় জড়িত বখাটে যুবককে গ্রেফতারের দাবিতে দুপুরে বিদ্যালয়ের সহপাঠী ও শিক্ষকরা অচিন্তপুর বাজারের গৌরীপুর-শাহগঞ্জ সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। এ সময় পুলিশ অভিযুক্তকে দ্রুত গ্রেফতারের আশ্বাস দিলে অবরোধ তুলে নেয় বিক্ষোভকারীরা।
গৌরীপুর থানার ওসি কামরুল ইসলাম মিয়া বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ওই বখাটে যুবকে গ্রেফতারে পুলিশী অভিযান চলছে।