ময়মনসিংহ পাসপোর্ট অফিসের কর্মচারী কর্তৃক তরুণী ধর্ষিত

প্রকাশিত: ৩:১৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৪, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ময়মনসিংহ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের আউটসোর্সিং কর্মচারীর হাতে সেবাপ্রার্থী এক তরুণী ধর্ষনের শিকার হয়েছে।
ধর্ষণের শিকার ওই তরুণী রোববার ময়মনসিংহ সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়েরের পর পুলিশ অভিযুক্ত মারুফকে গ্রেফতার করে।
এই ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃত আসামী প্রাথমিকভাবে বিষয়টি স্বীকার করেছে বলে জানিয়েছ পুলিশ। অভিযুক্তকে আজ সোমবার আদালতের মধ্যে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। বিষয়টিকে ধামাচাপা ও ধর্ষককে ছাড়িয়ে নিতে একটি মহল দফায়-দফায় তদবির চালাই বলে একটি সুত্র জানিয়েছে।

জানা গেছে ,তরুণীটি বেশ কিছুদিন পুর্বে ময়মনসিংহ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে পাসপোর্ট জটিলতা সংক্রান্ত কাজে গাজীপুর হতে আসেন। ওই সুত্র ধরে ময়মনসিংহ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের আউটসোর্সিং কর্মচারী মারুফ এর সাথে পরিচয় হয় তার। এরপর সেই সূত্রে তাঁদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। একপর্যায়ে মারুফ তাঁকে বিয়ে করবেন বলে আশ্বাস দেন। তরুণীকে কৌশলে পাসপোর্ট জটিলতা ও দেখা করার কথা বলে ময়মনসিংহে নিয়ে আসে।তার কথামতো গাজীপুর থেকে ময়মনসিংহে আসে তরুণীটি।ওই তরুণীকে মারুফ অশ্রীলকাজের প্রস্তাব দিলে সে অনিহা প্রকাশ করে। সন্ধ্যার পর পাসপোর্ট অফিস খোলা থাকায় উপ-পরিচালকের কক্ষেই মারুফ তার সাথে আপত্তিকর আচারন করে। তাকে ফুসলিয়ে পরে তাকে আবাসিক হোটেলে নিয়ে ইচ্ছার বিরুদ্ধে একাধিকরার যৌন মিলন করে।

ময়মনসিংহ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের উপ-পরিচালক মাহমুদুল হাসান জানান, ঘটনা শুনার পরে উর্ধ্বতন কতৃপক্ষকে লিখিতভাবে বিষয়টি জানানো হয়েছে।এ সম্পর্কে অফিসের কেউ পুর্বে হতে অবগত ছিলোনা। মারুফ এই অফিসের আউটসোর্সিং কর্মচারী ছিলো।

কোতোয়ালী থানার ওসি ফিরোজ তালুকদার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ভিকটিম থানায় পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। ডাক্তারী পরীক্ষা শেষে তাকে ছেড়ে দেওয়া হবে। অভিযুক্তকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো প্রস্তুতি চলছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও কোতোয়ালী থানার উপ-পরিদর্শক সোহেল রানা জানান, তরুণীর সাথে মারুফের প্রেমের সুত্র রয়েছে। মারুফ তরুটিকে হোটেলে রাত্রী যাপন করে এবং একাধিকবার তার সাথে যৌন মিলন করে । রোববার সন্ধ্যায় তরুণীটি থানায় অভিযোগ করলে চরপাড়া এলাকা হতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে