নান্দাইল বাশহাটি বিদ্যালয় মাঠে অবৈধ কোরবানির পশুর হাট

প্রকাশিত: ১:১৬ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৯, ২০২০

নান্দাইল উপজেলার চন্ডিপাশা ইউনিয়নের বাশহাটি বিদ্যালয় মাঠে অবৈধ ভাবে কোরবানির পশুর হাট বসিয়েছে একটি গোষ্টি। ওই হাট নিয়ে মামলা চলমান থাকলেও স্থানীয় প্রভাবশালী একটি মহল স্কুল মাঠে অবৈধভাবে হাট বসিয়ে সরকারের রাজস্ব ফাকি দিয়ে লাখ-লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন।

জানা যায়, ইজারাবিহীন হাটটি নিয়ে ২০১৭ সালে জমিদাতা শাহ আলম ভুইয়া জমি ফিরে পাওয়ার জন্য আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা চলমান থাকায় স্থানীয় প্রশাসন ইজারা স্থগিত করে দেন। তার পর হতে প্রতি বছর অবৈধ কোরবানীর হাট বসিয়ে লাখ-লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন একটি প্রবাবশালী মহল । অভিযোগ রয়েছে স্কুল কমিটির সভাপতি নজরুল ইসলাম ভুইয়ার নেতৃত্বে হাটটি বসছে। তিনি হাটের টাকা দিয়ে বাশহাটি বিদ্যালয়েরে উন্নয়নের নাম ব্যবহার করে ফায়দা নিচ্ছেন। কিন্তু সরকার কোন রাজস্ব পাচ্ছেনা।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাসির উদ্দিন বলেন, এখানে পশুর হাট বসানোর ব্যাপারে বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে গতবার অনুমতি দিয়েছিলাম। কিন্তু এইবার অনুমতি দেওয়া হয়নি।

স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি নজরুল ইসলাম ভুইয়া জানান, হাটটি মুলত স্কুলের উন্নয়নের স্বার্থে একটি তহবিল সংগ্রহের জন্য করা হয়েছে। এ বিষয়ে অনুমতি রয়েছে । কে অনুমতি দিয়েছে প্রশ্ন করলে বিষয়টি এড়িয়ে গিয়ে চন্ডিপাশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইমদাদুল হক ভুইয়ার সাথে কথা বলতে বলেন।

চন্ডিপাশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইমদাদুল হক ভুইয়া বলেন, নান্দাইলে অধিকাংশ হাট ইজারা নাম মাত্র। বারই গ্রাম মাছ বাজারটি বৃহৎ বাজার । যে বাজারে দৈনিক কোটি টাকা ক্রয়-বিক্রয় হয় অথচ বাজারটি ইজারাবিহীন চলছে সেখানে সরকার লাখ-লাখ টাকা রাজস্ব হারাচ্ছে । এই জালিয়াতি কাদের আশ্রয়ে হচ্ছে সে দিকে আপনারা একটু খেয়াল করুন। বাশহাটি পশুর হাটটি স্কুল পরিচালনা কমিটির লোকজন বসিয়েছে , অনুমতি বিষয়ে আমি তেমন কিছু জানিনা।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বৈধ ইজারাদার বলেন, আমাদের ক্ষতি করার জন্য নিজেদের চাঁদাবাজি আর স্বার্থ হাসিল করার জন্য অবৈধ ভাবে কোরবানির পশুর হাট বসিয়েছে। ঐসব আয়োজনকারীদের আইনের আওতায় এনে কঠিন শাস্তির দাবী জানাই।

উপজেলার নির্বাহী অফিসার এরশাদ উদ্দিন জানান, আমি নতুন যোগদান করেছি এ বিষয়ে না জেনে কিছু বলতে পারবোনা।

ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসক মিজানুর রহমান জানান, বিষয়টি সম্পর্কে আমি অবগত না। খোঁজ খবর নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান।