সরিষাবাড়ীতে বন্যার পানির স্রোতে ঝিনাই নদীর সেতু দেবে গেছে

প্রকাশিত: ৫:৪৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ২১, ২০২০

মো: সোলায়মান হোসেন হরেক ,সরিষাবাড়ী :

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে ঝিনাই নদীর ওপর স্থাপিত ২০০ মিটার ব্রীজের একাংশ বন্যার পানির তোড়ে দেবে যাওয়ায় ১২টি গ্রামের মানুষের সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। মঙ্গলবার সকালে উপজেলার কামরাবাদ ইউনিয়নের শুয়াকৈর শাহাজাদা হাট এলাকা ব্রীজে এ ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, ২০০৬ সালে শুয়াকৈর- হদুর মোড় এলাকার ঝিনাই নদীর ওপর ২০০ মিটার দৈর্ঘ্য ব্রীজটি স্থাপিত হয়। উপজেলা সদরের সাথে সড়ক সংযোগে চরাঞ্চলের ১২টি গ্রামের মানুষের যাতায়াতের একমাত্র ব্রীজ এটি। হঠাৎ করে মঙ্গলবার সকালে বন্যার পানির তোড়ে ওই ব্রীজের মাঝামাঝি ২০ মিটার দৈর্ঘ্যরে ২টি গার্ডারসহ ২টি পিলার প্রায় ১ ফুট দেবে গেছে। খবর পেয়ে দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিহাব উদ্দিন আহম্মেদ, প্রকৌশলী রাকিব হাসান ও প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা হুমায়ূন কবীর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ সময় ব্রীজটির একাংশ দেবে যাওয়ায় পুরো ব্রীজটি ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে বলে মানুষ ও যান চলাচল নিষিদ্ধ ঘোষনা করেন তারা। এতে চরাঞ্চলের ১২টি গ্রামের মানুষের সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। যেকোন সময় পিলারসহ ওই গার্ডার ২টি মুল ব্রীজ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে বড় ধরনের বিপর্যয় ডেকে আনতে পারে বলে স্থানীয়দের অনেকে জানান।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিহাব উদ্দিন আহম্মদ জানান, ব্রীজটির একাংশ দেবে যাওয়ায় সব ধরনের যান চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়েছে।