গৌরীপুরে অটোচালকদের উদ্যোগে রাস্তা সংস্কার

প্রকাশিত: ৩:২০ অপরাহ্ণ, জুলাই ২, ২০২০

শাহজাহান কবির গৌরীপুর ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহের গৌরীপুরে বৃষ্টি হলেই রাস্তায় কাদা-পানি জমে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে যায়। ফলে দুর্ভোগে পড়ে এলাকবাসী ও যান চালকরা। এলাকবাসী এর প্রতিকার চেয়ে জনপ্রতিনিধি সংশ্লিষ্ট কর্তপক্ষের কাছে মৌখিক আবেদন করেও সাড়া পায়নি। তাই নিজেরাই উদ্যোগ নিয়ে স্বেচ্ছাশ্রমে গুরুত্বপূর্ণ সড়ক সংস্কার করতে। স্থানীয় অটোচাকল আন্জু মিয়ার নেতৃত্বে আরও ১০/১২ জন লোকজন ১লা জুলাই সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত এ কাজ করেন।
জানা যায়, উপজেলার মাওহা ইউনিয়নের দীর্ঘ ১কিলোমিটারের একটি রাস্তা দীর্ঘদিন ধরে সংস্কারের অভাবে চলাচল অনুপযোগী হয়ে পরে। ওই রাস্তায় চলাচলকারী কুমড়ী, নহাটা,পাজুহাটী,কড়েহা ৪ গ্রামের মানুষ চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছিলেন। কয়েকদিন ধরে চলা বর্ষায় ওই রাস্তাটি একেবারে চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়লে তা সংস্কারের উদ্যোগ নেন অটোচালকরা । তিনি প্রথমে তার সহযোগী অটোচালকদের নিয়ে রাস্তার কাজ শুরু করেন এ সময় উপস্থিত ছিলেন আন্জু মিয়া,রেনু মিয়া,জহিরুল,আবু মিয়া,আলতু মিয়া,জুলহাস মিয়া, সেলিম, লুট মিয়া প্রমুখ। কুমড়ী মোড় হইতে নহাটা বাজার পর্যন্ত ওই এলাকার লোকজনের চার দিকের যে দিকেই যান অন্তত ২কিলোমিটার কর্দমাক্ত পথ পারি দিয়ে যেতে হয়। এলাকার লক্ষাধিক কৃষক তাদের কৃষিপণ্য নিয়ে পড়েন চরম বিপাকে। স্কুল-কলেজ ও মাদরাসাগামী শিক্ষার্থীরাও এতোদিন এই রাস্তায় দুর্ভোগ নিয়ে যাতায়াত করেছে।অটোচালকরা বলেন,কুমড়ী মোড় হইতে ১কিলোমিটার রাস্তা দীর্ঘদিন ধরে সংস্কারের অভাবে চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছিল। দীর্ঘদিন ধরে কোন জনপ্রতিনিধি রাস্তাটির কোন উন্নয়ন কাজ করেনি। তাই রাস্তাটিতে স্বাভাবিক চলাচল অব্যাহত রাখতে মেরামতের উদ্যোগ নিয়েছি। ওই রাস্তাটি দিয়ে এখানকার ৪ টি গ্রামের মানুষ নিত্যদিন চলাচল করে। তাদের দুর্ভোগ দেখে সম্পূর্ণ মানবিক দিক বিবেচনা করে আমরা রাস্তাটি একটু সচল করেছি। এই রাস্তাটি জরুরী ভিত্তিতে পাকা করণ আবশ্যক