জার্নাল ডেস্ক
29 June 2020
  • No Comments

    নান্দাইলে শিক্ষকের অনৈতিক প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করাই আপত্তিকর ভিডিও প্রচার

    মজিবুর রহমান ফয়সাল,নান্দাইল:
    উপজেলায় কোচিং সেন্টারের এক শিক্ষকের অনৈতিক প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় গোপনে আপত্তিকর অবস্থায় ভিডিও ধারন করে ফাঁস করে দেয়। এর আগে ওই ভিডিও হাতে রেখে ব্ল্যাক মেইল করে আসছিল শিক্ষক। এদিকে ভিডিওটি বিভিন্ন মানুষের হাতে পৌছে গেছে এলাকায় আলোচনা সমালোচনা শুরু হয়। এ অবস্থায় ছাত্রীকে নিয়ে বিপাকে পড়ে পরিবারের লোকজন। আর ঘটনার পর থেকে আত্মগোপনে চলে যায় শিক্ষক।
    স্থানীয় সুত্র জানায়, শেরপুর ইউনিয়নের পাঁচরুখি বাজারে কনফিডেন্স কোচিং সেন্টারের শিক্ষক পাঁচরুখি গ্রামের আব্দুস সালামের পুত্র নুরুল ইসলাম নুরু। ওই কোচিং সেন্টারের ছাত্রী পাশের একটি ইউনিয়নের বাসিন্দা। তার সাথে বিয়ের কথা বলে প্রেমের সর্ম্পক গড়ে তুলে নুরু। পরে বিভিন্ন সময় কোচিং শেষে ওই ছাত্রীর সাথে অনৈতিক সর্ম্পক গড়ে তুলে। এ অবস্থায় দুই জনের মাঝে মনোমানিল্যের এক পর্যায়ে দুরুত্ব তৈরি হয়। তখন শিক্ষক নুরু গোপনে ধারন করা একটি ভিডিও প্রচার করার কথা বলে হুমকী দিয়ে প্রতিনিয়ত অনৈতিক সর্ম্পকের প্রস্তাব দেয়। এতে ছাত্রী বিয়ে ছাড়া এসব আর করতে রাজী না হওয়ায় ওই ভিডিও বিভিন্ন মাধ্যমে প্রচার করে দেয়। একটি সুত্র জানায়, এরপর থেকে ওই ছাত্রী মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়ে। নিরাপত্তাহীনতায় পড়ে পরিবারের লোকজন। ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে শিক্ষকের পক্ষ হয়ে একটি চক্র উঠেপড়ে লেগেছে। ঘটনার পর অভিযুক্ত শিক্ষক লাপাত্তা হয়ে যাওয়ায় তার সাথে কথা বলা যায়নি।

    এই বিষয়ে নান্দাইল থানার উপপরিদর্শক আব্দুল করিম বলেন, এলাকায় গিয়ে ঘটনার সত্যতা পাই। ভিডিওটি সংরক্ষণ আছে। পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। থানার তদন্ত কর্মকর্তা আবুল হাসেম বলেন, গতকাল দুই জন পুলিশ নিয়ে ছাত্রীর বাড়িতে গিয়েছিলাম। তাদেরকে থানায় এসে মামলা করার পরামর্শ দিয়ে এসেছি। মামলা পেলেই অভিযুক্ত নূরুকে গ্রেফতার করা হবে।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *