জার্নাল ডেস্ক
20 June 2020
  • No Comments

    সরিষাবাড়ীতে চালককে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনতাই

    মো: সোলায়মান হোসেন হরেক ,সরিষাবাড়ী : জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে হাফিজুর রহমান নামে এক অটোরিকসা চালককে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে দুর্বত্তরা। হত্যার পর অটোরিকশা ছিনতাই করে নিয়েছে হত্যাকারীরা। শুক্রবার রাতে উপজেলার ডোয়াইল ইউনিয়নের রামনন্দপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সংবাদ পেয়ে শনিবার সকালে ওই চালকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
    পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, টাঙ্গাইল জেলার ধনবাড়ী উপজেলার বীরতারা ইউনিয়নের বাঁশনিউগির গ্রামের আব্দুস ছাত্তারের ছেলে অটোরিকশা চালক হাফিজুর রহমান (৩০)। সে কয়েক দিন আগে একটি নতুন আটোবাইক ক্রয় করেছিল। শুক্রবার সন্ধ্যায় অটোরিকশা নিয়ে নিজ বাড়ি বাঁশনিউগির গ্রাম থেকে বের হয়ে আসে। এরপর আর সে রাতে বাড়ি ফিরেনি। এতে তার পরিবারের লোকজন রাতে বিভিন্ন এলাকায় খোঁজাখুঁজির করে হাফিজুর রহমানের কোনো সন্ধান পায়নি। শনিবার সকালে পরিবারের সদস্যরা জানতে পারে সিমান্তবর্তী সরিষাবাড়ীর উপজেলার ডোয়াইল ইউনিয়নের রামনন্দপুর গ্রামে পাট ক্ষেতের পাশে এক ব্যাক্তির মৃত দেহ পাওয়া গেছে। পরিবারের লোকজন ঘটনাস্থলে এসে দেখে হাফিজুর রহমানকে সনাক্ত করেন। হাফিজুরের লাশ পড়ে থাকলেও আটোবাইকটি পাওয়া যায়নি। হাফিজুরের লাশ ফেলে রেখে তার অটোরিকশা নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। খবর পেয়ে সরিষাবাড়ী থানার ওসি (তদন্ত) জোয়াহের হোসেন খাঁন সকালে ঘটনাস্থলে গিয়ে গলায় মাফলার দিয়ে পেচানো হাফিজুর রহমানের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।
    নিহত হাফিজুরের মা হাসনা বেগম বলেন, তার ছেলে হাফিজুর শুক্রবার সন্ধ্যায় অটোরিকশা নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়। এরপর আর সে বাড়িতে ফিরেনি। সারারাত তাকে অনেক খোঁজাখুঁজি করেছি। কোথাও পাওয়া যায়নি। শনিবার সকালে রামনন্দপুর গ্রামে পাট ক্ষেতের পাশে তার ছেলে হাফিজুরের লাশের সন্ধান পায়। হাফিজুর দুই সন্তানের জনক বলে জানিয়েছেন তিনি।
    সরিষাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু মোহাম্মদ ফজলুল করীম বলেন, হাফিজুর রহমান নামে এক অটোবাইক চালকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে। অটোবাইক ছিন্তাইয়ের কারনে হাফিজুরকে শ্বাসরোধ হত্যা করা হয়েছে। তার লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *