ত্রাণ বন্টনে অনিয়মে উদ্বেগ জানিয়েছে বাংলাদেশ কংগ্রেস

প্রকাশিত: ১:২৫ অপরাহ্ণ, মে ১৮, ২০২০

বার বার ত্রাণ বন্টনে অনিয়ম হওয়ায় উদ্বেগ জানিয়েছে বাংলাদেশ কংগ্রেস। গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে দলটির চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট কাজী রেজাউল হোসেন ও মহাসচিব এ্যাডভোকেট মোঃ ইয়ারুল ইসলাম বলেছেন, করোনার প্রাদূর্ভাবে প্রথম পর্বের ত্রাণ বন্টনে ব্যাপক অনিয়ম হওয়ায় সচিবদের তত্ত্বাধানে নগদ অর্থ সহায়তার পদক্ষেপ নেয় সরকার। কিন্তু তালিকা তৈরীতে দেশব্যাপী আবারও ভয়াবহ অনিয়মের খবর পাওয়া যাচ্ছে। প্রথমবার অনিয়ম হওয়ায় দেশব্যাপী সর্বদলীয় মনিটরিং কমিটি গঠন করে সরকারী কর্মকর্তা ও সেনাবাহিনীর মাধ্যমে ত্রাণের তালিকা করার আহবান জানিয়েছিল বাংলাদেশ কংগ্রেস।

কিন্তু সে আহবান উপেক্ষা করে পুনরায় দুর্নীতিবাজ জনপ্রতিনিধি ও দলীয় লোকদের দ্বারা ত্রাণের তালিকা করে সরকার। ফলে এবারও অনিয়ম হয়েছে এবং নগদ অর্থ প্রাপ্তি থেকে উপযুক্ত ব্যক্তিরা বঞ্চিত হচ্ছে। সরকারের উচিৎ সর্বপ্রকার ত্রাণ বন্টনে জনপ্রতিনিধিদের বাদ দিয়ে সরকারী কর্মকর্তা ও আইন-শৃংখলা বাহিনীর সদস্য বা সেনাবাহিনীকে নিয়োজিত করা। অনিয়মের সাথে জড়িতদের অবিলম্বে শাস্তির আওতায় আনার প্রতি গুরুত্ব দিয়ে বিবৃতিতে বলা হয় জরূরী ভিত্তিতে বর্তমান তালিকায় নগদ অর্থ প্রদান বন্ধ রেখে সর্বদলীয় মনিটরিং কমিটি করে সরকারী কর্মকর্তা ও সেনাবাহিনীর সহায়তায় স্বচ্ছ তালিকা প্রণয়ন করে নগদ অর্থ প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহন করতে হবে।

লকডাইন শিথিল করা প্রসঙ্গে বিবৃতিতে বলা হয় এ ব্যাপারে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। করোনা দীর্ঘমেয়াদী হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দেয়ায় করোনাকে সাথে নিয়েই ধীরে ধীরে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার পরিবেশ তৈরী করতে সরকারের প্রতি আহবান জানিয়ে বিবৃতিতে আরও বলা হয় জনগণ, সরকার ও রাজনৈতিক দলগুলোর সমন্বিত উদ্যোগের মাধ্যমে করোনাকে জয় করতে হবে এবং তার জন্য সরকারকে উদার ভূমিকা পালন করতে হবে। দলের দপ্তর সম্পাদক তুষার রহমান কর্তৃক স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে অবিলম্বে স্বাস্থবিধি মেনে সীমিত আকারে গণপরিবহন চালু রাখার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানানো হয়।