জার্নাল ডেস্ক
14 April 2020
  • No Comments

    ময়মনসিংহে নারী চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত, ২জনের মৃত্যু : জেলা অবরুদ্ধ ঘোষনা

    নিজস্ব প্রতিবেদক:
    ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন এলাকার এই প্রথম মেডিকেল কলেজ সংলগ্ন চরপাড়া নয়া পাড়ায় হামিদা মোস্তফা নামের এক নারী চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাকে নগরীর এস.কে হাসাপতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। এবং চিকিৎসকের সাথে যারা ছিলেন চিকিৎসক স্বামী, শ্বশুর-শ্বাশুড়ীসহ বাড়ির অন্যান্য লোকজনকেও প্রাতিষ্ঠানিক হোম কোয়ারিন্টেনে নেয়া হয়েছে।
    সিটি কর্পোরেশনের ১৪নং ওয়ার্ডের চরপাড়া নয়া পাড়া লাশকাটা গেইটের বিপরীত গলি জননী নার্সিংহোম গলি এলাকায় লক ডাউন ঘোষণা করেছেন সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ হাফিজুর রহমান। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ওই এলাকা থেকে কেউ বাইরে বেরুতে পারবে না এবং কেউ বাইরে থেকে প্রবেশ করতে পারবে না। কেউ এর ব্যতিক্রম ঘটালে কঠিন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে হুশিয়ারি করে দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার।
    সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ হাফিজুর রহমান জানান, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজরনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মেডিকেল অফিসার হিসেবে কর্মরত অবস্থায় এক করোনা রোগীকে চিকিৎসা দেয়ার ফলে ওই মহিলা চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত হন।
    এ ছাড়া ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের (মসিক) ৩২নং ওয়ার্ডে চরকালীবাড়ি এলাকার আব্দুর রহমান (৬০) এক বৃদ্ধা শ্বাসকষ্টে মঙ্গলবার সকালে মৃত্যুবরণ করেছেন। স্বাস্থ্য বিভাগ খবর পেয়ে তার রক্তের নমুনা সংগ্রহ করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ পিসিআর ল্যাবে প্রেরণ করেছে। মসিক মেয়র ইকরামুল হক টিটুর নির্দেশে একটি টীম তার দাফনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করেছে বলে মসিক খাদ্য স্যানিটেশন কর্মকর্তা দীপক মজুমদার জানান।
    অপরদিকে ত্রিশাল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে শ্বাসকষ্ট ও জ্বর নিয়ে এক মুর্শিদা আক্তার (৪০) নামের এক নারী মৃত্যুবরণ করেছে বলে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পণা কর্মককর্তা ডা. নজরুল ইসলাম জানান। তার রক্তের নমুনা সংগ্রহ করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ পিসিআর ল্যাবে প্রেরণ করা হয়েছে। তার বাড়ি ময়মনসিংহের ত্রিশাল পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডে।
    এদিকে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে ময়মনসিংহ জেলাকে লকডাউন ঘোষনা করেছে জেলা প্রশাসন। মঙ্গলবার বিকালে জেলা প্রশাসন মিজানুর রহমান এ ঘোষনা দেন। তিনি বলেন, জেলায় ইতিমধ্যে ৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাই করোনা প্রতিরোধে জেলা থেকে উপজেলা এবং উপজেলা থেকে ইউনিয়নসহ গ্রাম পর্যায়ে লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সর্বাত্তক সর্তক অবস্থানে রয়েছে মানুষকে ঘরে রাখার জন্য। নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রী ছাড়া কোন প্রকার যানবাহন জেলার মধ্যে ঢুকবেনা এবং বেরও হবেনা। আশা করছি সকলের সহযোগিতায় করোনা প্রতিরোধে সক্ষম হব।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *